করোনাকালে মন ও শরীর দুটোকেই ভালো এবং সুস্থ রাখা

করোনাকালে থমকে গেছে সবকিছুএই পরিস্থিতিতে নিজেদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ঘরবন্দী সারা বিশ্ব সামক্নের প্রতিটি সময়ে অনিশ্চয়তা৷ তাই করোনাকালে আমাদের সবাইকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হবে, যাতে আমরা সেই সুন্দর পৃথিবীটাকে আবার দেখতে পারি, আবার উপভোগ করতে পারিস্বাস্থ্য সুরক্ষাই হতে পারে এই অভিশাপ থেকে আমাদের মুক্তির হাতিয়ারপ্রথমদিকে চীনে করোনা ভাইরাস মহামারী রূপ নিলেও আমাদের দেশে হটাৎ করেই এর আগমন ঘটে মার্চ মাসের দিকেহটাৎ পালটে যায় পরিস্থিতিজনমানবে শুরু হয় আতঙ্ক!

তবে এ সময়ে আমাদের প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে

১) স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাঃ মার্চের শেষ দিকে শুরু হয় রোগাক্রান্ত হওয়াসারাদেশ জুড়ে লকডাউনের কঠোর নির্দেশ জারি করা হয়৷ রাস্তা-ঘাট সমস্ত কিছু ফাকা হয়ে যায়সবাই নিজেদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে উদ্যোগী হয়ে পড়েকরোনাকালীন সময়ে আমাদের সকলকে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চলতে হবেনিয়মিত সাবান দিয়ে যথাযথভাবে হাত ধুতে হবেবাইরে বেরোনোর সময় মাস্ক পরিধান করতে হবেধীরে ধীরে করোনার প্রাদুর্ভাব কমে আসছেফলে বর্তমান সময়ে মানুষ এখন স্বাভাবিক জীবনযাপন করছেঅনেকেই এখন কর্মক্ষেত্রে উপস্থিত থাকছেনসাধারণ মানুষও কর্মক্ষেত্রে যাওয়া শুরু করেছেতবে এখন আমাদের সকলের উচিত নিজেদেরকে মানসিকভাবে প্রফুল্ল রাখাএজন্য আমরা বেশ কয়েকটি দিকে নজর দিতে পারিযেমনঃ 

ঘরে বসে সময় কাটানো

-খেলাধুলা করা

-ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলা

পরিবারের সদস্যদের সাথে গল্প করা 

মানবতার সেবা করা

নিম্নে বিষয়গুলো ব্যাখা করা হলঃ 

যেহেতু এখন বাহিরে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি নেই,তাই আমাদের ঘরে বসেই সময় কাটাতে হবে

এই সময়ে আমাদের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে নিয়মিত খেলাধুলা করতে হবেবাড়িতে বসে বিভিন্ন ইন্ডোর গেমস ও ব্যায়াম অনুশীলন করতে হবে

এসময় পরিবারের সদস্যদের সাথে বসে হল্প করা যেতে পারে৷ এসময় তাদের সাথে বসে পড়াশোনা, নিজেদের ভালো লাগা ইত্যাদি বিষয় নিয়্র আলোচনা করা যেতে পারে৷ 

এসময় ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলা খুবই জরুরীবিশেষ করে, মহান আল্লাহ যাতে আমাদেরকে এই মহামারীর হাত থেকে রক্ষা করেন, সেজন্য প্রার্থনা করা খুবই জরুরী

এসময় অনেক সমস্যার মধ্যে দিয়ে জীবজ পরিচালনা করতে হচ্ছেঅনেকের খাওয়ার জন্য দুমুঠো ভাত নেই, পরিধানের জন্য পোশাক নেই, তাদেরকে আমরা আমাদের সাধ্যমত সহায়তা করতে পারি

 

মানবতা, সৌহার্দ্য ছাড়া জীবনে বেঁচে থাকা সম্ভব নয়এই করোনা হয়ত একদিন চলে যাবে, পৃথিবীতে হয়তো মানুষ আবার নতুন করে বাঁচতে শিখবে পৃথিবীটা আমার হবে ফুলের মতো সুন্দর!

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব হয়তো একদিন থেমে যাবেথেমে যাবে এ মৃত্যুর মিছিলআবার আমরা মিলিত হতে পারব সবাই একসাথেআবার হয়তো জীবনটা ফুটে উঠবে ফুলের মতোকিন্তু ততদিন আমাদের সবাইকে অপেক্ষা করতে হবে৷ স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হবেযাতে আমরা উপভোগ করতে পারি সেই সুন্দর পৃথিবী

 

Md Nafis Ullah

School & College Category

GB003

LEAVE REPLY

Your email address will not be published.